ঢাকা    শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

coronavirus
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বিশ্বব্যাপী ৩২৭৯৪৭০৪ ২৪১৯৩২৯৩ ৯৯৪০০৮
বাংলাদেশ ৩৫৭৮৭৩ ২৬৮৭৭৭ ৫১২৯

বলিউডের সবচেয়ে দামি দশ অভিনেতা

প্রকাশিত: ১৩:৩৯, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

একটি সিনেমা নির্মাণের জন্য কত টাকা নেন একজন বলিউড সুপারস্টার? কৌতুহলী ভক্তদের মনে এই প্রশ্নই ঘুরপাক খায় প্রতিনিয়ত। যদিও নির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা নেই এই উত্তরটি জন্য। তবে তাদের ছবি প্রতি অর্থের পরিমাণ পরিবর্তনশীল।

সাধারনত সিনেমা প্রতি তাদের পারিশ্রমিক নির্ভর করে সেই নায়কের ব্র্যান্ড ভ্যালু, পরিচিতি এবং তার দক্ষতার ওপর। বলিউডের অনেক কম সংখ্যক নায়কই রয়েছে যারা তাদের এই দক্ষতা অনেক দীর্ঘ সময়ের জন্য ধরে রাখতে পেরেছেন।

বলিউডে এ মুহূর্তে বেশ মোটা অংকের পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেতার তালিকাটা অনেকটাই লম্বা। সে তালিকার সেরা দশ নিয়ে এ আয়োজন-

রণভীর সিং
বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন রণভীর সিং। এরপর যশরাজ ফিল্মসের ব্যানারে ব্যান্ড বাজা বারাত সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু তার। তার অভিনয়ে রয়েছে আলাদা স্বকীয়তা। ভিন্নধর্মী পোশাক পড়ে অন্যদের থেকে কিছুটা ব্যতিক্রম থাকতে পছন্দ করেন তিনি। ফিল্মফেয়ার থেকে পাওয়া চারটি পুরস্কারই বলে দেয় অভিনয়ে কতটা দক্ষ তিনি। বলিউডের এই অভিনেতা সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ১৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক পেয়ে থাকেন।

সাঈফ আলী খান
সম্ভ্রান্ত পরিবার থেকে উঠে আসা সাঈফের বাবা নবাব মুনসুর আলী খান পাতৌদি ছিলেন ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক এবং মা শর্মিলা ঠাকুর নন্দিত অভিনেত্রী। ১৯৯২ সালে যশ চোপড়া পরিচালিত পরম্পরা সিনেমার প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে পদার্পণ তার। বেশ কিছু জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়ে দর্শক মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। সিনেমার প্রধান চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ২০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন ছোট নবাব খ্যাত সাঈফ। বর্তমান সময়ে খল চরিত্রে বেশ আগ্রহ জন্মেছে তার৷ আসন্ন সিনেমা আদি পুরুষের প্রধান খলচরিত্রে দেখা যাবে তাকে।

অমিতাভ বচ্চন
ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতাদের একজন তিনি। দেশটির প্রায় সকল অঞ্চলের মানুষই ভালোবাসে তাকে। ইংরেজি প্রবাদ প্রবচন, 'ওল্ড ইজ গোল্ড'-এর সমার্থক শব্দ যেন তিনি। সিনেমায় অভিনয় ছাড়াও ভারতের অন্যতম বড় রিয়েলিটি শো, 'কৌন বানেগা ক্রোড়পতি'র সঞ্চালক তিনি। ভারতের অন্যতম গুণী এই অভিনেতা প্রতিটি সিনেমার জন্য ২০-২৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক পান।

অজয় দেবগন
বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা অজয়। বিয়ে করেছেন আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল দেবগনকে। তার অভিনয় দক্ষতার প্রমাণ মিলেছিলো ক্যারিয়ারের প্রথম সিনেমা ফুল ওর কাঁটাতেই। সে ছবি তাকে এনে দিয়েছিল ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড। শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করা অজয়ের রয়েছে নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান 'অজয় দেবগন ফিল্মস' এবং অজয় হলেন ভারতের প্রথম অভিনেতা যার কিনা ব্যক্তিগত জেট বিমান ছিল। তিনি প্রতিটি সিনেমায় পারিশ্রমিক হিসেবে নেন ২৫ কোটি রুপি।

রণবীর কাপুর
বলিউডের সব থেকে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়ার তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রয়েছেন বিখ্যাত কাপুর বাড়ির ছেলে রণবীর কাপুর। বলিউডের এই চকলেট বয়ের ঝুলিতে রয়েছে পাঁচটি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড। তার রক্তেই অভিনয়। বাবা ঋষি কাপুর, মা নিতু সিং দুজনই ছিলেন দুর্দান্ত অভিনয় তারকা। দাদা রাজ কাপুরের রয়েছে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে বিশাল অবদান। বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা প্রতিটি সিনেমার জন্য পারিশ্রমিক হিসেবে নিয়ে থাকেন ২৫-৩০ কোটি রুপি।

হৃত্বিক রোশন
প্রথম সিনেমা 'কাহোনা পেয়ার হে' দিয়ে বক্স অফিসে কাঁপিয়েছিলেন হৃত্বিক রোশন। তবে তার বলিউডে যাত্রা সেই শৈশবকাল থেকে, বেশ কয়েকটি সিনেমায় শিশু অভিনেতা হিসেবে অভিনয় করেছেন তিনি। ফিটনেস সচেতন হৃত্বিককে নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। জামা কাপড়ের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড এইচ আর এক্স প্রতিষ্ঠানটিও তার। ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় এই অভিনেতা তার প্রতিটি সিনেমার জন্য নিয়ে থাকে ৩০ থেকে ৪০ কোটি রুপি। তবে গুজব রয়েছে মহেঞ্জোদারো সিনেমাটির জন্য ৫০ কোটি রুপি নিয়েছিলেন হৃত্বিক।

শাহরুখ খান
নিজের নামের পাশে আরও একটি পরিচয় রয়েছে তার, 'কিং খান'। বলিউডের কিং তিনি। টিভি সিরিয়াল থেকে রঙিন দুনিয়ার জীবনে আগমন। এরপর এখানে নিজেকে বাদশাহ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। অসাধারণ অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করেছেন কোটি ভক্তের হৃদয়। চাক দে ইন্ডিয়া কিংবা মাই নেইম ইজ খান ছবিতে অভিনয় করে শক্তিশালী অভিনেতা হিসেবে ভারত তথা সমাজকে দিয়েছেন বেশ শক্ত বার্তা। বলিউড বাদশা তার প্রতিটি সিনেমার জন্য গড়ে নিয়ে থাকেন ৪০ থেকে ৪৫ কোটি রুপি।

অক্ষয় কুমার
পাঞ্জাবি পরিবারে জন্ম তার।ছেলেবেলা থেকেই ছিল দুরন্তপনা। অক্ষয়ের ঝোঁক ছিল খেলাধুলায়। কারাতে ব্ল্যাক বেল্টও জিতেছেন তিনি। তবে বলিউডে অক্ষয়ের যত শক্ত অবস্থান আজ সেখানে অধিষ্ঠিত হওয়ার পথ মসৃণ ছিল না। সহশিল্পী হিসেবে কাজ করেছেন দীর্ঘদিন। ১৯৯২ সালে দেদার সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার সহশিল্পীর জীবনকাল শেষ হয়। অক্ষয় তার সকল সিনেমায় স্টান্টগুলো নিজেই করে থাকেন। ছবিতে মজা মাস্তির ঢংয়ে মারপিটের জন্য ভক্তরা তাকে নাম দিয়েছেন ইন্ডিয়ান জ্যাকি চ্যান। ভারতের এই গুণী অভিনেতা তার প্রতিটি সিনেমার জন্য নিয়ে থাকেন ৪৫ থেকে ৪৭ কোটি রুপি। কখনো ৫০ কোটিও নেন।

আমির খান
চাচার সিনেমায় শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় জীবন শুরু আমিরের। ১৯৮৮ সালে কেয়ামত সে কেয়ামত তাক সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে প্রধান চরিত্র অভিনয় শুরু। তার অভিনয় সম্পর্কে বলতে গিয়ে নতুন কোনো বিষয় যোগ করার দরকার পড়ে না।
তিনি বলিউডের অন্যতম একজন অভিনেতা যিনি কিনা একই সঙ্গে পদ্মশ্রী এবং পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। বলিউডের এই মিস্টার পারফেকশনিস্ট তার প্রতিটি সিনেমার জন্য ৪৫ থেকে ৫০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন।

সালমান খান
অভিনয় শিখে বলিউডে আসা ব্যক্তিদের মধ্যে সালমান একজন। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক শেষ হওয়ার পরেই অভিনয় শেখার জন্য ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে পদচারণা তার। ১৯৮৮ সালে প্রথম সিনেমায় আসেন তিনি।

শুধু অভিনয় নয়, অসাধারণ ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মানুষও তিনি। মাঝেমধ্যেই তার অলাভজনক প্রতিষ্ঠান বিং হিউম্যানকে সঙ্গে নিয়ে নানা ধরনের সামাজিক কর্মকান্ড করতে দেখা যায় তাকে। বলিউডের দাবাংখ্যাত অভিনেতা তার প্রতিটি সিনেমার জন্য ৬০-৬৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন।

Add