ঢাকা    বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

coronavirus
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বিশ্বব্যাপী ৩১৭৭১৪১১ ২৩৩৮৬৭১৪ ৯৭৫৩১০
বাংলাদেশ ৩৫২১৭৮ ২৬০৩৯০ ৫০০৭

বসন্তের বাতাসে চিকেন পক্সের ভাইরাস ভেসে বেড়াচ্ছে

প্রকাশিত: ১৪:৪২, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

বসন্তের শেষেই গ্রীষ্ম এসে হাজির হবে। শীতকাল শেষ হতে এখনো বাকি মাসখানেক। এরই মধ্যে গরমের আবির্ভাব ঘটেছে। এসময় শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়।

সর্দি কাশি ও জ্বর এসময় সাধারণ বিষয়। ছোট থেকে বড় সবাই এসবে ভুগে থাকেন। তবে বসন্তে চিকেন পক্স হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। কারণ এসময় বাতাসে ভেসে বেড়ায় ভেরেসেলা জোস্টার ভাইরাস। যা পক্সের জন্য দায়ী। 

শুধু বসন্তেই নয়, বছরের যে কোনো সময়ও এই রোগটি হতে পারে। তবে বছরের প্রথম ছয় মাস অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত এই রোগের প্রকোপ বেড়ে যায়। আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণেই এই রোগটি হানা দেয় শরীরে।

চিকেন পক্সে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ

প্রাথমিক ভাবে জ্বর হয়। ক্রমশ জ্বরের মাত্রা বাড়তে থাকে। পাশাপাশি শরীর ব্যথা ও ফুসকুড়ি বের হয় সঙ্গে চুলকানি। প্রথমে পেটে বা পিঠে এরপর মুখে এভাবে পুরো শরীরে ফুসকুড়ি ছড়িয়ে পড়ে। এসব ফুসকুড়ি ফোস্কার মতো আকার নেয় এরপর পুঁজের মতো হয়। ৭ থেকে ১০ দিন পর থেকে তা শুকাতে থাকে। চিকেন পক্সে শরীর অত্যন্ত দুর্বল হয়ে পরে।

পক্স বা গুঁটিবসন্ত রোগটি ছোঁয়াচে ধাঁচের। দ্রুত আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে আশেপাশের মানুষের দেহে রোগটি ছড়িয়ে পরে। সাধারণত আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি বা থুতুর সঙ্গে ভাইরাসটি ছড়ায়। এমনকি আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে এলেও পক্স ছড়াতে পারে। এই ভাইরাসটি শরীরে প্রবেশের অন্তত ১৪ থেকে ২১ দিনের মধ্যে লক্ষণগুলো দেখা দিতে শুরু করে। 

Add