ঢাকা    শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০

coronavirus
আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বিশ্বব্যাপী ৪১৯৯৪৪৪২ ৩১১৮৭২৩১ ১১৪২৭৪৪
বাংলাদেশ ৩৯৪৮২৭ ৩১০৫৩২ ৫৭৪৭

সম্পর্ক ভাঙার পাঁচটি পূর্ব লক্ষণ

প্রকাশিত: ১৪:০৬, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

সম্পর্কে মান অভিমান, ভাব ভালোবাসা, ঝগড়া ইত্যাদি থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তবে সব সম্পর্কে এমনটা হয় না। কিছু কিছু সম্পর্কে শুধুমাত্র দুজনের মধ্যে নামমাত্র সম্পর্কটাই থাকে, ভেতরে কিছুই থাকে না। আবার অনেক সম্পর্কে ভেতরে ভেতরে ছন্দ কেটে গেলেও বাইরে থেকে তা অনেক সময় টের পাওয়া যায় না।

দেখা যায়, দীর্ঘদিন পাশাপাশি থাকার পরও দূরত্ব বাড়তে থাকে ক্রমশ।তবে এই ব্যাপারটি এমনভাবে ঘটে যে, হুট করে বোঝা সম্ভব হয় না। হয়তো ঝগড়া-ঝাটি নেই, চিৎকার চেচামেচিও নেই কিন্তু সেই নিস্তব্ধতাও অসহ্য মনে হয়। পাশে থেকেও যেন কত দূরে! সম্পর্কে কোনো তাল নেই, সুর নেই। পরস্পরের প্রতি এই উদাসীনতা এক সময় বড় আকার ধারণ করে।

তবে সমস্যার সমাধানে যখন বিষয়গুলো ঘটে, তখন সেদিকে একটু নজর দিলেই হয়। এতেই সম্পর্কে আবারো সচ্ছলতা ফিরে আসবে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক সম্পর্ক ভাঙার পাঁচটি পূর্ব লক্ষণ সম্পর্কে। যা আগে থেকেই আপনাকে সতর্ক থাকতে সহায়তা করবে।

সঙ্গীকে আলিঙ্গনে অনিচ্ছা

আগে সুযোগ পেলেই পরস্পর আলিঙ্গনবদ্ধ হতেন আর এখন তাকে একবারের জন্যও জড়িয়ে ধরতে ইচ্ছা হয় না। এরকমটা দেখা দিলে বুঝতে হবে কোথাও একটা তাল কেটে গেছে। পরস্পরকে ভালোবাসি বলার অভ্যাসটি হারিয়ে গেলেও তা দুশ্চিন্তার কারণ।

পরস্পরের সমালোচনা

যেকোনো বিষয়ে একে অন্যের পাশে থাকাই একজন ভালো সঙ্গীর লক্ষণ। কিন্তু সুযোগ পেলেই অন্যজনের সমালোচনায় মেতে ওঠা কিংবা অন্যের কাছে নিন্দা-মন্দ করে বেড়ানো সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার লক্ষণ। তাকে কোনোকিছুতেই গুরুত্ব না দেয়াও সেরকমটাই প্রকাশ করে।

রাতে আলাদা থাকা

যদি দুজন আলাদা কক্ষে বা আলাদা বিছানায় ঘুমাতে অভ্যস্ত হয়ে যান তবে বুঝে নেবেন, সম্পর্ক একেবারেই তলানিতে ঠেকেছে। এমনকি এক বিছানায় থেকেও দূরত্ব বজায় রাখা এই লক্ষণই প্রকাশ করে। এর অর্থ হলো, সম্পর্কের তাল কেটে গেছে। তাকে ছাড়াও জীবন চালিয়ে নেয়া সম্ভব।

ছুটির দিনে সঙ্গীকে সময় না দেয়া

সপ্তাহভর প্রত্যেকেই ব্যস্ত থাকেন নানা কাজে। অপেক্ষা করেন ছুটির দিনের। কিন্তু এখন ছুটি পেলেও সেই দিনটা সঙ্গীর পাশে না থেকে বন্ধুদের সঙ্গে কাটাতে বেশি ভালোলাগে। এমনটা ঘটলে বুঝতে হবে সম্পর্ক আর আগের মতো নেই।

সঙ্গী নয়, সোশ্যাল মিডিয়া

সারাদিনের কাজের শেষে যখন দুজন একসঙ্গে সময় কাটানোর কথা, সেই সময়টা কাটাচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পাশাপাশি বসে টিভি দেখা, গল্প করা বা মনের কথা জানান দেয়ার চেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতে বেশি ভালোলাগছে? বুঝে নেবেন সম্পর্কে তিক্ততা চলে এসেছে।

সূত্র: ইন্ডিয়ান টাইমস
 

Add