AllBanglaNews24

প্রকাশিত: ১৭:০৫, ১০ জুলাই ২০২১

‘ম্যারাডোনা’ কে দেখতে মানিকগঞ্জে শত শত মানুষের ভিড়

‘ম্যারাডোনা’ কে দেখতে মানিকগঞ্জে শত শত মানুষের ভিড়

ছবি : সংগৃহীত

মানিকগঞ্জ সদরের হাটিপাড়া ইউনিয়নের বরুন্ডি গ্রামের মো. মঞ্জুর রহমানের বাড়িতে শত শত মানুষের ভিড়। এ বাড়িতেই আছে ‘ম্যারাডোনা’। সবার একটাই উদ্দেশ্য। আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকার নামের সঙ্গে মিলিয়ে নাম রাখা ২৫ মণ ওজনের গরুটিকে একনজর দেখা।

গিড়ি জাতের সাদা-কালো রঙের গরুটি এবারের কোরবানির হাটে জেলার অন্যতম আকর্ষণ। ক্রেতাদের কাছে ‘ম্যারাডোনা’র দাম চাওয়া হচ্ছে ১৫ লাখ টাকা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বাড়িতে বিশাল খামার গড়ে তুলেছেন মঞ্জুর রহমান। তার খামারে বিভিন্ন জাতের ছোট-বড় ৬৮টি গরু আছে। এরমধ্যে ষাঁড় ২৫টি, গাভী ২৫টি এবং বাচ্চা গরু ১৮টি। গরুগুলো লালনপালন ও দেখাশোনার জন্য শ্রমিক আছে ছয়জন।

খামারের মালিক মঞ্জুর রহমান বলেন, কোরবানি উপলক্ষে এ বছর ১৫টি গরু প্রস্তুত করেছি। এরমধ্যে বিশেষ আকর্ষণ ‘ম্যারাডোনা’। গিড়ি জাতের গরুটিকে এক বছর আগে দিনাজপুরের গোপালপুর গ্রাম থেকে পাচ লাখ টাকায় কিনেছিলাম। এক বছর লালনপালনের পর ৯ ফুট লম্বা ও ৬ ফুট উচ্চতার ‘ম্যারাডোনা’র ওজন হয়েছে ২৫ মণ। ১৫ লাখ টাকা হলে এবারের কোরবানিতে ‘ম্যারাডোনা’কে বিক্রি করব।

মানিকগঞ্জ জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মাহবুবুল ইসলাম বলেন, এবারের কোরবানি উপলক্ষে মানিকগঞ্জে ১০ হাজার ৯২৬টি খামারে ২৭ হাজার ৫৫৪টি ষাড়, ৯২৮টি বলদ, ১৩টি মহিষ, ১৬ হাজার ২৮৬টি ছাগল এবং দুই হাজার ৮৩৯টি ভেড়া প্রস্তুত করা হচ্ছে। খামারগুলোতে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে প্রাণীগুলোকে মোটাতাজা করা হয়। প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা খামারিদের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখছেন। তাদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও পরার্মশ দেওয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Advertising
Add
allbanglanewspaper-link

সর্বশেষ