AllBanglaNews24

প্রকাশিত: ১৫:৫৯, ১০ আগস্ট ২০২০
আপডেট: ১৭:৫৫, ১৩ আগস্ট ২০২০

মানিকগঞ্জে বন্যায় ২০ কোটি টাকার সবজির ক্ষতি হয়েছে

মানিকগঞ্জে বন্যায় ২০ কোটি  টাকার সবজির ক্ষতি হয়েছে

ছবি: সংগৃহীত

চলতি বন্যায় মানিকগঞ্জে ১ হাজার ৩শ ৩৫ হেক্টর জমির ২০ কোটি ৭০ লাখ টাকার সবজির ক্ষতি হয়েছে।  এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৫শ ৮৫ জন চাষি।

মানিকগঞ্জের সবজির আবাদের সুনাম দেশজুড়ে।  স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়ে এ জেলার সবজি ঢাকাসহ আশেপাশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়ে থাকে।  চলতি বন্যায় জেলায় সবজির বিশাল ক্ষতি বাজারে সবজির দাম বাড়িয়ে দেবে। 

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ (খামারবাড়ি) অধিদপ্তর জানায়, চলতি মৌসুমে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ১ হাজার ২শ ৫০ হেক্টর, সিংগাইর উপজেলায় ১ হাজার ৮শ ২৮ হেক্টর, সাটুরিয়া উপজেলায় ৪শ ৪০ হেক্টর, ঘিওর উপজেলায় ২শ ৪৫ হেক্টর, দৌলতপুর উপজেলায় ২শ ৫০ হেক্টর, শিবালয় উপজেলায় ১শ ৭৯ হেক্টর, হরিরামপুর উপজেলায় ২শ ৫১ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ করা হয়।

চলতি বন্যায় মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ২১ হেক্টর জমির ২শ ১০ মেট্রিক টন, সিংগাইর উপজেলায় ১ হাজার হেক্টর জমির ১ লাখ মেট্রিক টন, সাটুরিয়া উপজেলায় ৩শ হেক্টর জমির ৩ হাজার মেট্রিক টন, ঘিওর উপজেলায় ২ হেক্টর জমির ২০ মেট্রিক টন, শিবালয় উপজেলায় ১০ হেক্টর জমির ১শ মেট্রিক টন এবং হরিরামপুর উপজেলায় ২ হেক্টর জমির ২০ মেট্রিক টন সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪শ ২০ জন চাষির ৪২ লাখ টাকা, সিংগাইর উপজেলায় ৮ হাজার চাষির ২০ কোটি টাকা, সাটুরিয়া উপজেলায় ৫ হাজার চাষির ৬ কোটি টাকা, ঘিওর উপজেলায় ৩৫ জন চাষির ৪ লাখ টাকা, শিবালয় উপজেলায় ১১০ জন চাষির ২০ লাখ এবং হরিরামপুর উপজেলায় ২০ জন চাষির ৪ লাখ টাকার সবজির আর্থিক ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রাম এলাকার মাইনুল ইসলাম বলেন, প্রতি বছর ৬ থেকে ৭ বিঘা জমিতে সবজির আবাদ করে থাকি।  এবারো সাড়ে ৬ বিঘা জমিতে চালকুমড়া, ধুন্দুল, ঢেড়শ, বেগুন ও করলার আবাদ করেছিলাম।  তবে বন্যার পানিতে সব তলিয়ে যাওয়ায় লোকসানে পড়ে গেছি।

সাটুরিয়া উপজেলার গোলড়া এলাকার সৈয়দ সোলায়মান বলেন, চলতি বন্যায় পুইশাক পটল চিচিংগা ঝিংগা ও মিষ্টি কুমড়ার সবজির আবাদ বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে।  এতে করে তার প্রায় ৩ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শাহ্জাহান আলী বিশ্বাস জানান, জেলার ৬টি উপজেলার লক্ষ্যমাত্রার ৩০ ভাগ সবজি বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

চলতি বন্যায় যে সকল সবজি চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের প্রণোদনা দেওয়াসহ নতুনভাবে সবজি উৎপাদনের বিষয়ে সকল ধরনের সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান তিনি।

সূত্র: রাইজিংবিডি.কম

অল বাংলানিউজ ২৪

শেয়ার করুন

Advertising
allbanglanewspaper-link

Fatal error: Uncaught Error: Call to undefined function curl_init() in /home/allbanglanews24/public_html/details.php:477 Stack trace: #0 {main} thrown in /home/allbanglanews24/public_html/details.php on line 477